২১ মে ২০২২, শনিবার, ০৭:৩৪:০৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
গোয়াইনঘাট উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান গোলাম আম্বিয়া কয়েছ এর পক্ষ থেকে ঈদ শুভেচ্ছা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হুমায়ুন কবিরের ঈদ শুভেচ্ছা বাণী লুটপাট আর স্বার্থ হাসিলে ব্যস্ত চেয়ারম্যান আঃ রশিদ সওদাগর সংযোগ সড়ক না থাকায় কাজে আসছে না সেতুগুলো ইউক্রেন যুদ্ধের মধ্যেই রাশিয়ার ‘বন্ধু’ দেশকে ‘গোপনে’ এইচকিউ-২২ মিসাইল দিল চীন জাপানে আট দশক ধরে ইসলামের আলো ছড়াচ্ছে কোবের মসজিদ ২০৩০ সালে দুইবার আসবে পবিত্র রমজান গোতাবায়ার কার্যালয়ের সামনে স্থায়ী তাবু গেড়েছে বিক্ষোভকারীরা! জাতির উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রীর পূর্ণাঙ্গ ভাষণ মেডিকেলে চান্স পাওয়া সেই শিক্ষার্থীর দায়িত্ব নিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান


মেডিকেলে চান্স পাওয়া সেই শিক্ষার্থীর দায়িত্ব নিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান
অনলাইন ডেস্কঃ
  • আপডেট করা হয়েছে : ১৩-০৪-২০২২
মেডিকেলে চান্স পাওয়া সেই শিক্ষার্থীর দায়িত্ব নিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান


গত শুক্রবার (৮ এপ্রিল) ‘মেয়ের মেডিকেলে ভর্তির সুযোগ, ভ্যানচালক বাবার স্বপ্ন পূরণ’- এই শিরোনামে বাংলাদেশ প্রতিদিনে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। সংবাদটি ঠাকুরগাঁও বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আলী আসলাম জুয়েলের নজরে আসে। এরপর তিনি সেই ভ্যানচালক বাবার মেডিকেলে চান্স পাওয়া মেয়ে আল্পনা আকতারের পড়াশোনার দায়িত্ব নিয়েছেন।

এছাড়াও গতকাল মঙ্গলবার রাতে উপজেলার বড়পলাশবাড়ী ইউনিয়নের ধারিয়া বেলসাড়া গ্রামে সেই ভ্যানচালকের বাসায় গিয়ে আর্থিক সহযোগিতা প্রদান করেন। এ সময় তিনি আল্পনার পড়ালেখার দায়িত্ব নিজের কাঁধে নেওয়ার ঘোষণা দেন।

উপজেলা চেয়ারম্যান আসলাম জুয়েল জানান, মেডিকেলে চান্স পাওয়া আল্পনা আকতার এর বাবা আফতাবর রহমান সামান্য একজন ভ্যানচালক। নিজস্ব জমি-জমা না থাকলেও একমাত্র রিকশা চালিয়ে তিনি ৩ সন্তানকে উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত করার স্বপ্নে এগিয়ে চলেছেন। তার একমাত্র ছেলেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ানোর পাশাপাশি এবার তার এক মেয়ে মেডিক্যাল কলেজে ভর্তির সুযোগ পেয়েছে। এটি আমার এলাকার একটি গর্বের বিষয়। এলাকার জনপ্রতিনিধি হিসেবে নিজের দায়িত্ববোধ থেকে মেয়েটির মেডিকেল কলেজে ভর্তিসহ তার পড়ালেখার যাবতীয় খরচ বহনের সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

আল্পনা আকতার এর বাবা আফতাবর রহমান বলেন, ভিটেমাটি আর ভ্যান গাড়ি ছাড়া আমার আর কোন সম্পদ নেই। চার সন্তানের মধ্যে একমাত্র ছেলে মুন্না আলী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে লেখাপড়া করছে। এদিকে মেয়ে আলপনা আক্তারের মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তির সুযোগ হয়েছে তার। এছাড়া বড় মেয়ের বিয়ে দিয়ে পাত্রস্থ করেছেন আর ছোট মেয়ে পড়ছে উচ্চ মাধ্যমিকে। তিনি উপজেলা চেয়ারম্যান মেয়ের মেডিকেলে ভর্তির টাকাসহ তার পড়ালেখার দায়িত্বভার নেওয়ার আশ্বাস দেওয়ায় অনেক খুশি হয়েছেন।

শেয়ার করুন