২১ মে ২০২২, শনিবার, ০৫:৫১:১৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
গোয়াইনঘাট উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান গোলাম আম্বিয়া কয়েছ এর পক্ষ থেকে ঈদ শুভেচ্ছা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হুমায়ুন কবিরের ঈদ শুভেচ্ছা বাণী লুটপাট আর স্বার্থ হাসিলে ব্যস্ত চেয়ারম্যান আঃ রশিদ সওদাগর সংযোগ সড়ক না থাকায় কাজে আসছে না সেতুগুলো ইউক্রেন যুদ্ধের মধ্যেই রাশিয়ার ‘বন্ধু’ দেশকে ‘গোপনে’ এইচকিউ-২২ মিসাইল দিল চীন জাপানে আট দশক ধরে ইসলামের আলো ছড়াচ্ছে কোবের মসজিদ ২০৩০ সালে দুইবার আসবে পবিত্র রমজান গোতাবায়ার কার্যালয়ের সামনে স্থায়ী তাবু গেড়েছে বিক্ষোভকারীরা! জাতির উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রীর পূর্ণাঙ্গ ভাষণ মেডিকেলে চান্স পাওয়া সেই শিক্ষার্থীর দায়িত্ব নিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান


প্রবাসীর স্ত্রীকে ইট দিয়ে মাথা থেঁতলে হত্যা
  • আপডেট করা হয়েছে : ১৩-০৪-২০২২
প্রবাসীর স্ত্রীকে ইট দিয়ে মাথা থেঁতলে হত্যা


টাঙ্গাইলের বাসাইলে মধ্যরাতে ঘরে ঢুকে লিমা আক্তার (৩০) নামে এক প্রবাসীর স্ত্রীকে ইট দিয়ে মাথা থেঁতলে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। 

মঙ্গলবার দিবাগত রাতে উপজেলার কাশিল ইউনিয়নের নথখোলা উত্তরপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। 

এ অভিযোগের তীর উঠেছে প্রতিবেশী ট্রাকচালক ওয়াসিমের (৩৮) দিকে। তবে স্থানীয়দের অভিযোগ, ওয়াসিমের সঙ্গে লিমার পরকীয়ার সম্পর্ক ছিল। 

নিহত লিমা আক্তার ওই গ্রামের সৌদি প্রবাসী জাহিদ হোসেনের (ময়নাল) স্ত্রী। অভিযুক্ত ওয়াসিম প্রতিবেশী মৃত ফজল মিয়ার ছেলে। 

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, লিমার স্বামী জাহিদ হোসেন (ময়নাল) দীর্ঘদিন সৌদি আরব প্রবাসী। এ জন্য লিমা তার চার বছরের এক শিশুপুত্রকে নিয়ে একাই ঘরে থাকতেন। প্রতিদিনের ন্যায় রাতের খাবার খেয়ে লিমা নিজ ঘরে ঘুমিয়ে পড়েন। 

মধ্যরাতে লিমার চিৎকারে শ্বশুর জোয়াহের মিয়া এগিয়ে এলে অভিযুক্ত ওয়াসিম ঘর থেকে দ্রুত বের হয়ে যায়। এ সময় লিমা রক্তাক্ত অবস্থায় বিছানায় কাতরাচ্ছিলেন। স্বজনরা উদ্ধার করে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

এ বিষয়ে লিমার শ্বশুর জোয়াহের মিয়া বলেন, ঘরে ঢুকে ওয়াসিম আমার ছেলের বউকে ইট দিয়ে মাথায় আঘাত করে হত্যা করেছে। এ সময় তার মাথায় আঘাত করা ইটটি পাশেই পড়েছিল। আমি লিমা হত্যার বিচার চাই। 

বাসাইল থানার ওসি মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় নিহত গৃহবধূর শ্বশুর বাদী হয়ে অভিযুক্ত ওয়াসিমকে আসামি করে মামলা করেছেন। হত্যার পেছনে পরকীয়া নাকি অন্য কিছু রয়েছে এ বিষয়ে তদন্ত চলছে। 

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে টাঙ্গাইলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মো. শরফুদ্দীন বলেন, আমরা এসব আলামত সংগ্রহ করেছি। আশা করি খুব দ্রুতই আসামিকে গ্রেফতার করা সম্ভব হবে।

শেয়ার করুন