২১ মে ২০২২, শনিবার, ০৬:৫৫:৩৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
গোয়াইনঘাট উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান গোলাম আম্বিয়া কয়েছ এর পক্ষ থেকে ঈদ শুভেচ্ছা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হুমায়ুন কবিরের ঈদ শুভেচ্ছা বাণী লুটপাট আর স্বার্থ হাসিলে ব্যস্ত চেয়ারম্যান আঃ রশিদ সওদাগর সংযোগ সড়ক না থাকায় কাজে আসছে না সেতুগুলো ইউক্রেন যুদ্ধের মধ্যেই রাশিয়ার ‘বন্ধু’ দেশকে ‘গোপনে’ এইচকিউ-২২ মিসাইল দিল চীন জাপানে আট দশক ধরে ইসলামের আলো ছড়াচ্ছে কোবের মসজিদ ২০৩০ সালে দুইবার আসবে পবিত্র রমজান গোতাবায়ার কার্যালয়ের সামনে স্থায়ী তাবু গেড়েছে বিক্ষোভকারীরা! জাতির উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রীর পূর্ণাঙ্গ ভাষণ মেডিকেলে চান্স পাওয়া সেই শিক্ষার্থীর দায়িত্ব নিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান


ফেসবুক লাইভে এসে রাবির সাবেক শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা
অনলাইন ডেস্কঃ
  • আপডেট করা হয়েছে : ০৯-০৪-২০২২
ফেসবুক লাইভে এসে রাবির সাবেক শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা


ফেসবুক লাইভে এসে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) চারুকলা অনুষদের সোহাগ খন্দকার নামের এক সাবেক শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছেন। শুক্রবার রাত ৩টার দিকে নিজ বাড়িতে গলায় ফাঁস দিলে শনিবার ভোর ৫টার দিকে হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। 

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন চারুকলা অনুষদের ওই বিভাগের ২০১০-১১ সেশনের শিক্ষার্থী নুর আহম্মেদ। 

সোহাগ খন্দকার বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০০৮-২০০৯ শিক্ষাবর্ষের চারুকলা অনুষদের চিত্রকলা, প্রাচ্যকলা ও ছাপচিত্র বিভাগের শিক্ষার্থী ছিলেন। তার বাড়ি নীলফামারী জেলার সৈয়দপুর উপজেলার কয়ানিজপাড়া গ্রামে।

আত্মহত্যার আগে সোহাগ খন্দকার তার ফেসবুক টাইমলাইনে চারটি স্ট্যাটাস দেন। স্ট্যাটাসগুলো হলো— ‘ভালো থাকুক সেসব মানুষ যারা শুধু নিজেকে নিয়ে ব্যস্ত থাকে। যার কাছে অন্যের গুরুত্ব নাই বললেই চলে;’ ‘যদি কেউ আমার উপর কষ্ট নিয়ে থাকেন। আল্লাহর দোহাই মাফ করে দিবেন;’ ‘জীবনের কাছে হার মেনে গেলাম। আমি আর পারলাম না;’ এবং ‘একটা মানুষ যখন আর জীবনের কাছে যখন হেরে যায় তখন আর করার কিছু থাকে না।’

সোহাগ খন্দকারের বিভাগের জুনিয়র শিক্ষার্থী নুর আহম্মেদ জানান, শুক্রবার রাতে ফেসবুক লাইভে এসে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন সোহাগ। পরে মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানেই তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে চিত্রকলা, প্রাচ্যকলা ও ছাপচিত্র বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক  আব্দুস সোবহান বলেন, বিষয়টি আপনাদের (সাংবাদিকদের) কাছ থেকে শুনেছি। তার পরিবার থেকে কোনো তথ্য এখনো পাইনি। যদি ঘটনা সত্য হয়, তবে তা খুব বেদনাদায়ক। আত্মহত্যা কোনো সমাধান হতে পারে না। 
 

শেয়ার করুন